জেনে নিন কোন দশটি মুভির জন্য ঐশ্বরিয়া রায় বিখ্যাত

ঐশ্বরিয়া রায়ের দশটি সুপারহিট মুভি | Aishwariya Rai Top 10 Superhit Movies

ঐশ্বরিয়া রায় বচ্চন কে আমরা কে না চিনি। ভারত ছাড়া বিভিন্ন দেশেও এনার সুনাম ও খ্যাতি রয়েছে। ভারতীয় ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে সব থেকে সুন্দর অ্যাকট্রেস বলেও এনাকে মানা হয়। ঐশ্বরিয়া রায় বচ্চন ১৯৯৪ সালে মিস ওয়ার্ল্ড হন। ইনি হিন্দি ছাড়াও তামিল, তেলেগু, বাংলা এবং ইংরেজি ভাষাতে কাজ করেছেন। ঐশ্বরিয়া রায় বচ্চনকে ভারত সরকারের তরফ থেকে পদ্মশ্রী পদবীয় দেওয়া হয়েছে। এবং ফ্রান্স সরকার তাকে Ordre des Arts et des Lettres পদবী দেন।

ঐশ্বরিয়া রায়ের বলিউডের সুপারস্টার অমিতাভ বচ্চনের ছেলে অভিষেক বচ্চনের সাথে বিয়ে হয়। আর এখন তিনি একজন মেয়ের মা। আমরা ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চনের কয়েকটি সুপারহিট মুভির নাম নিয়ে আলোচনা করব। যে সমস্ত মুভিতে কাজ করে ঐশ্বরিয়া রায় প্রচুর শুনাম ও খ্যাতি অর্জন করেছেন।

Top 10 movies

১০ নম্বরে আসে ইরুভার। এটি একটি তামিল মুভি। এই মুভি থেকে ঐশ্বরিয়া রায় তার অভিনয় জীবনে যাত্রা শুরু করেন। এই মুভিটি ১৯৯৭ সালের রিলিজ করা হয়েছিল। মুভিটি রাজনৈতিক ড্রামা নিয়ে করা হয়েছিল। এইটিতে ঐশ্বরিয়া রায় কাল্পানা আর পুষ্পাবলি এই দুটি চরিত্রে একইসঙ্গে অভিনয় করেছেন। এই মুভিটিতে ঐশ্বরিয়া রাইয়ের সাথে প্রধান চরিত্রে ছিলেন প্রকাশ রাজ, তাব্বু, মোহনলাল, রেবতী এবং গৌতমি। রাষ্ট্রীয় ফিল্ম পুরস্কারে বেস্ট ফিল্মের পুরস্কার পেয়েছিল এই মুভিটি।

৯ নম্বরে আসে তাল (Taal)। ডিরেক্টর সুভাষ ভাই এর ডিরেক্ট করা এই মুভিটি ১৯৯৯ সালে রিলিজ করা হয়েছিল। এই মুভিটিতে ঐশ্বর্য রায়ের সাথে সাথে অনিল কাপুর, অক্ষয় খান্না, আমলেশ পুরি, এবং আলোক নাথ কাজ করেছিলেন। এই মুভিটি তামিল থালাম নামে প্রকাশ করা হয়েছিল। দুটি ভাষাতে এই মুভিটি প্রচুর হিট হয়েছিল। বইটির সাথে সাথে এই বইটিতে যে গানগুলি আছে সেগুলি এখনও মানুষের মনে আছে।

ঐশ্বরিয়া রায় এই মুভিটিতে মানসী চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন যেখানে তিনি একজন বড়লোক ছেলে অর্থাৎ অক্ষয় খান্না কে ভালবাসবেন। কিন্তু তার বাড়ির লোক বিয়ের প্রস্তাবে বারণ করে দেয়। অনিল কাপুর তাকে এই মুভিটিতে একজন সফল শিল্পী হতে সাহায্য করেন। এই মুভিটিতে ঐশ্বরিয়া রায় বেস্ট এক্টরের আওয়ার্ড পেয়েছিলেন। ১১.৫ কোটির এই বইটি ৫১.১ কোটি ইনকাম করেছিল।

৮ নম্বরে আসে এন্থিরান। ডাইরেক্টর এবং রাইটারে এস শঙ্করের ডিরেক্ট করা এই মুভিটি দুটি ভাগে বের করেছিলেন। প্রথম টি 2010 এ এবং দ্বিতীয় টি ২০১৮ তে। এন্থিরান ফিল্ম সিরিজ বাহুবলির পরে সব থেকে বেশি ইনকাম করা মুভি। এই মুভিটিতে ঐশ্বরিয়া রায়ের সঙ্গে রজনীকান্তকে দেখা যায়। এটি একটি অ্যাকশন ফিল্ম। এই ফিল্মটি হিন্দি এবং তেলেগুতে রিলিজ করা হয়েছিল। এই মুভিটিতে জনতারা ঐশ্বরিয়া রায় কে খুব পছন্দ করেছেন। ফিল্ম টু পয়েন্ট ও এই মুভিটি ১১৫০ কোটি টাকা ইনকাম করেছিল।

৭ নম্বরে আসে জোশ। এই মুভিটিতে আমরা ঐশ্বরিয়া রায় সাথে সাথে শাহরুখ খানকে দেখতে পেয়েছিলাম। এই মুভিতে ঐশ্বরিয়া রায় শাহরুখ খানের জমজ বোনের অভিনয় করেছিল। এই মুভিটি গোয়ার খুব ছোট একটি শহরে দুটি গ্যাংস্টারের শত্রুতার একটি কাহিনি নিয়ে করা হয়েছিল। চন্দ্রচূড় সিং শাহরুখ খানের শত্রু ভাই হবে এবং ঐশ্বরিয়া রায়ের চন্দ্রচুর সিং কে ভালোবাসবে। ১৬ কোটি টাকার এই বইটি 35 কোটি টাকা ইনকাম করেছিল।

৬ নম্বরে আসে জিন্স। ডিরেক্টর এস শঙ্করের ১৯৯৮ সালে করা এই মুভিটি তামিল ভাষায় প্রকাশ করা হয়েছিল। এই মুভিটি তখনকার সময় সবথেকে দামি মুভি হিসেবে গণ্য করা হয়েছিল। এই মুভিটি তামিল ছাড়াও হিন্দি এবং তেলেগু ভাষাতেও রিলিজ করা হয়েছিল। কুড়ি কোটি টাকার এই মুভিটি ৫০ কোটি টাকা ইনকাম করেছিল।

৫ নম্বরে আসে ধুম টু । ধুম টু একটি অ্যাকশন ফিল্ম ছিল এবং এটি ২০০৬ এ রিলিজ করা হয়েছিল। এই মুভিটিতে ঐশ্বরিয়া রায় সাথেসাথে অভিশাপ বচ্চন ঋত্বিক রোশনও কাজ করেছেন। ৩৫০ মিলিয়নের এই মুভিটি ১.৫ বিলিয়ন টাকা ইনকাম করেছিল। ২০০৬ সব থেকে বেশি ইনকাম করা মুভির মধ্যে ছিল এই মুভিটি।

৪ নম্বরে আসে রাবণ। এই মুভিটি ডিরেক্টর হলেন মানি রতনাম। ঐশ্বরিয়া রায়ের এই মুভিটি ২০১০ এ রিলিজ করা হয়েছিল। ঐশ্বরিয়া রায় সাথে সাথে এই মুভিটিতে অমিতাভ বচ্চন কেও দেখা যায়। এই মুভিটি তামিল ভাষাতেও রিলিজ করা হয়েছিল। ৫৫০ মিলিয়নের এই মুভিটি শুধু মাত্র ৪৯৫ মিলিয়ন ইনকাম করতে পেরেছিল।

৩ নম্বরে আসে হাম দিল দে চুকে সানাম। ঐশ্বরিয়া রায় সবথেকে হিট মুভি গুলির মধ্যে আসে এই মুভিটি। এই মুভিটিতে ঐশ্বরিয়া রায় সাথে সাথে সালমান খান এবং অজয় দেবগনকেও দেখা যায়। ঐশ্বরিয়া রায়ের নন্দিনী চরিত্রে এই মুভিটিতে অভিনয় করেছিল। ১৬ কোটির এই মুভিটি ৫১.৪ কোটি টাকা ইনকাম করেছিল। ১৯৯৯ সালে রিলিজ হওয়া এই মুভিটি মুভিটির জন্য ঐশ্বরিয়া রায় কে ফিল্মফেয়ার এবং আইফা অ্যাওয়ার্ডে বেস্ট এক্টরের অ্যাওয়ার্ড পেয়েছিল। লাক্স ফেয়ার অফ দা ইয়ার ঐশ্বরিয়া রায় পেয়েছিল এই মুভিটির জন্য। এই মুভিটি ন্যাশনাল অ্যাওয়ার্ড জিতেছিল।

দুই নম্বরে আসে কান্দো কান্দেন কান্দো কান্দেন। এই একটি একটি তামিল মুভি ছিল এবং এটি ২০০০ সালের রিলিজ করা হয়েছিল। এটি একটি রোমান্টিক ড্রামা ছিল। এই মুভিটি ন্যাশনাল অ্যাওয়ার্ড এবং ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ড জিতেছিল।

এক নম্বরে আসে দেবদাস। ১২ ই জুলাই ২০০২ এ রিলিজ করা এই মুভিটি ঐশ্বরিয়া সবথেকে হিট মুভি বলে গণ্য করা হয়। এই মুভিটিতে ঐশ্বরিয়া রায় পারো চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন। এই মুভিটিতে ঐশ্বরিয়া রায়ের সাথে সাথে শাহরুখ খান এবং মাধুরী দীক্ষিতকে দেখা যায়। ৫০ কোটি টাকার এই মুভিটি ৯৯.৮ কোটি টাকা ইনকাম করেছিল। এই মুভিটিতে কাজ করার জন্য ঐশ্বরিয়া রায় কে ফিল্মফেয়ার এবং আইফার বেস্ট অ্যাকট্রেস অ্যাওয়ার্ড দেওয়া হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button