কেন সানি দেওলের আসন্ন ছবি ‘Gadar 2’ কে ব্যান করা হবে!

gadar 2 img

এখন সানি দেওল আমাদের সেই সব অভিনেতাদের মধ্যে একজন যাদেরকে আমাদের প্রতিবেশী দেশ পাকিস্তান একদমই পছন্দ করে না। কেননা এই সব তারকারা নিজেদের অভিনয়ের দ্বারা পাকিস্তান বিরোধী চরিত্রগুলি খুবই ভালোভাবে পালন করেছে। যার কারণে পাকিস্তান এটাকে খুবই অপমানের সাথে গ্রহণ করেছে। এই অপমান বোধের কারণে পাকিস্তান সানি দেওল-কে পুরোপুরি নিষিদ্ধ করে দিয়েছে। তা সত্ত্বেও কিন্তু সানি দেওল এর পুরো বিশ্বে অনেক ফ্যান বেস দেখা যায়। তাছাড়া সানি দেওল নিজের আসন্ন ছবি গুলি নিয়ে খুবই চর্চাতে রয়েছেন। আর সেই ছবির শুটিং করার সময়ে তার পিঠে আঘাত লাগে। সেই আঘাতের চিকিৎসা সানি দেওল আমেরিকাতে থেকে করাচ্ছেন। কিন্তু জানা গেছে তিনি খুব শীঘ্রই তার নিজের দেশে ফিরছেন আর ফিরেই তিনি তার শুটিংয়ের কাজ আবার শুরু করবেন। গাদ্দার ২ মুভির প্রথম ঘোষণা করার পর থেকেই দর্শকদের মধ্যে একটা হৈচৈ সৃষ্টি হয়েছে।

সম্প্রতি, 15ই আগস্ট, তার আসন্ন ছবি “Gadar 2” এর টিজার ভিডিওটিও প্রকাশিত হয়েছিল। টিজার ভিডিওতে আমরা BGM অর্থাৎ “Gadar 2” এর ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিক শুনতে পেয়েছি। তা শোনার পর আবারও Gadar প্রেমীদের মধ্যে আনন্দের জোয়ার বইছে। আর ছবিটির জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছেন। একদিকে যেখানে বলিউডের অনেক বাজেটের ছবি ফ্লপ প্রমাণিত হচ্ছে এবং দীর্ঘদিন ধরে বলিউডের ছবি বয়কটের কথা চলছে, অন্যদিকে Gadar প্রেমীরা বলছেন, সানি দেওলের এই ছবিই বলিউডের হারিয়ে যাওয়া সম্মান বাঁচাতে পারে । কিন্তু এরই মধ্যে সানি দেওলের এই বহুল প্রতীক্ষিত ছবি নিয়ে ষড়যন্ত্র শুরু হয়েছে।

যার কারণে তার ছবিও নিষিদ্ধ হতে পারে। আর এই বিষয়টি নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় তুমুল আলোচনা হচ্ছে। আসলে, মিডিয়া এবং সোশ্যাল মিডিয়ায় Gadar প্রেমীরা সর্বদা ছবিটি সম্পর্কিত সমস্ত বিবরণ জানার জন্যে নজরপাত করে আছেন। সম্প্রতি, এমন অনেক পোস্টও ভাইরাল হচ্ছে যাতে বলা হচ্ছে সানি দেওলের এই ছবি নিষিদ্ধ করার জন্য ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে।

আরও পড়ুন:- RRR, KGF Chapter 2, Vikram এর মধ্যে কোনটি সেরা এবং কেন

→ জেনে নিন Jhalak Dikhla jaa Session 10 অংশগ্রহণকারী Judges এবং celebrity দের পার উইক স্যালারি কত

→ জানেন কি Thank God মুভিটি কারা কারা রিজেক্ট করেছেন

সানি দেওলের আসন্ন ছবি গাদ্দার টু-এর সমর্থনে, অনেক দর্শক তার দলকে সমর্থন করার কথাও বলছেন। অন্যদিকে এই ছবিটি নিয়ে ষড়যন্ত্রও ফাঁস করা হচ্ছে। এদিকে, সোশ্যাল মিডিয়ার শক্তি দিন দিন বেড়েই চলেছে। কারণ মিডিয়া এবং সোশ্যাল মিডিয়ায় যদি কোনো চলচ্চিত্র বয়কট শুরু হয়, তাহলে তার কালেকশনে ব্যাপক ঘাটতি দেখা দিতে বাধ্য।

এর জীবন্ত প্রমাণ দেখা যায় অক্ষয় কুমারের ছবি “Raksha Bandhan” এবং আমির খানের ছবি “Laal Singh Chaddha” তে। যেভাবে লাল সিং চাড্ডা ফিল্ম নিয়ে বয়কটের দাবি দ্রুতবেড়ে গেছিলো, আমির খানও সেই বয়কটের সামনে নত হয়েছেন। যার ফলাফল স্বরূপ দেখা গেছে আমির খানের মুভি লাল সিং চাড্ডা ফ্লপ হয়ে গিয়েছিলো। অন্যদিকে সানি দেওলের এই ছবি নিয়ে ব্যাপক উত্তেজনা শুরু হয়েছে। অনেক ব্যবহারকারী এই ছবির সমর্থনে অনেক পোস্টও করছেন। আর বলছে Gadar 2 কে সুপার ডুপার হিট করেই ছাড়বো।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button